Daily NewsR

সব

ইসলামী ব্যাংক প্রজেক্টের প্রান্ত ধরে রাখে

ইসলামী ব্যাংকের প্রতি শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) এই বছরে হ্রাস পেয়েছে, দেশের সর্ববৃহৎ প্রাইভেট ব্যাংকের কার্যক্রম সম্পর্কে আগ্রহী হাজার হাজার বিনিয়োগকারী তৈরি করছে

ইপিএস হল সাধারণ শেয়ারের প্রতিটি সুসংগত শেয়ারে বরাদ্দকৃত কোম্পানির মুনাফার অংশ এবং এর ফলে কোম্পানির মুনাফা একটি সূচক।

২০১৭ সালের তৃতীয় চতুর্থাংশের শেষে ইসলামী ব্যাংকের ইপিএস ০.৩১ ডলারে দাঁড়িয়েছে, দ্বিতীয় কোয়ার্টারে ১.১৮ টাকা থেকে এবং প্রথম কোয়ার্টারে ০.৬২ টাকা। ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের ওয়েবসাইটের একটি পোস্টিং অনুযায়ী।

এই বছরের জানুয়ারী-সেপ্টেম্বরে ব্যাংকের ২১ টাকা প্রতি টাকায় প্রতি বছর ২৬ হাজার টাকা থেকে কম ছিল।

আরিফু খান, তার চেয়ারম্যান বলেন, যদিও অপারেটিং মুনাফা বেড়েছে, ইপিএস হ্রাস পেয়েছে, যেহেতু রিজার্ভুলিংয়ের জন্য কেন্দ্রীয় ব্যাংকের অনুমোদন পাওয়ার জন্য ব্যাংকগুলি তাদের ঋণের বিশাল প্রভিশন বজায় রাখতে চায়।


২০১৭ সালের প্রথম নয় মাসে ইসলামী ব্যাংকের অপারেটিং মুনাফা এক বছর আগের তুলনায় ২৯২৪ শতাংশ বেড়ে ১,৫৬৯ কোটি টাকা হয়েছে।

বাংলাদেশ ব্যাংকের একজন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা বলেন, ব্যাংকগুলি সাধারণত বোর্ডের পুনঃনির্ধারণের জন্য অনুমোদন দেওয়া হয়েছে এবং চূড়ান্ত অনুমোদনের জন্য কেন্দ্রীয় ব্যাংকে পাঠানো ঋণের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের প্রয়োজন নেই।

কিন্তু ইসলামী ব্যাংক এর ক্ষেত্রে এটি ভিন্ন। ইসলামী ব্যাংক এ নিযুক্তি পর্যবেক্ষক ব্যাংকের অনুমোদন গ্রহণ না হওয়া পর্যন্ত প্রবিধান বজায় রাখার নির্দেশ দেন।

ইসলামী ব্যাংকের চেয়ারম্যান বলেন, "এটি ইপিএসের পতনের কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে," রিজার্ভুয়ালিং প্রস্তাবগুলোতে কেন্দ্রীয় ব্যাংক সবুজ আলো দিলেই ইপিএস ফিরে আসবে। তাছাড়া, গত দুই বছরে আদালতের রায়ের অপেক্ষায় থাকা ঋণের বিপরীতে ব্যাংকের ১৪৩ কোটি টাকা রক্ষণাবেক্ষণ করা হয়েছে।

"আমরা বছর শেষে প্রভিশান বজায় রাখতে পারতাম, কিন্তু আমরা ভাল পরিমাপের জন্য আগেই করেছি," খান বলেন।

উচ্চতর সংস্থানের প্রয়োজনীয়তা হলো বছরের প্রথম নয় মাসে ইসলামী ব্যাংকের মোট লাভ হ'ল ৩৩৮ কোটি টাকা, যা আগের বছরের তুলনায় ১ ৯ শতাংশ কম।

জানুয়ারিতে ইসলামী ব্যাংকের হেডলাইনের কারণে তার ব্যবস্থাপনাকে পুনঃনির্ধারণ করা হয়েছে।

তারপর থেকে ইসলামী ব্যাংকের শেয়ারের দাম কমেছে। গত ছয় মাসে এটি ৩০ থেকে ৩৬ টাকা করে দখল করে। ইসলামী ব্যাংকের শেয়ার গতকাল ৩৩.৪০ টাকায় বন্ধ হয়ে যায়।

ইসলামী ব্যাংকের একটি পরিশোধিত মূলধন রয়েছে ১,৬১০ কোটি টাকা এবং তার বাজার মূলধন ৫,৬৮৩ কোটি টাকা।

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন  mhtipsblog
© স্বত্ব Daily NewsR ২০১৬ - ২০১৮
সম্পাদক ও প্রকাশক: মোহাম্মদ:> শুভ ইসলাম
কুমিল্লা, ফেনী, চট্টগ্রাম
মোবাইল ০১৮৭২০৮৯১৯৬ ইমেইল:  Shvo3936@gmail.com