DailyNewsR.Com |  Read All Bangladeshi online Newspapers At one placebd
দেশে ১৩ দিনের মধ্যে রেমিটেন্সে ৫৬৬ মিলিয়ন ডলার আয়
Monday, 23 Oct 2017 13:49 pm
DailyNewsR.Com |  Read All Bangladeshi online Newspapers At one placebd

DailyNewsR.Com | Read All Bangladeshi online Newspapers At one placebd

অক্টোবরের চলতি মাসের প্রথম ১৩ দিনে রেমিটেন্সে ৫৬৬.৫৭ মিলিয়ন ডলার আয় করেছে দেশটি।

বাংলাদেশ ব্যাংকের পরিসংখ্যান দেখায় যে, সর্বোচ্চ প্রিপেইড বাণিজ্যিক ব্যাংকের মাধ্যমে পেয়েছে ৪১৩.২৯ মিলিয়ন ডলার এবং ৯ বিদেশী ব্যাংকের ৪.৬৮ মিলিয়ন ডলার।
ছয় রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন বাণিজ্যিক ব্যাংক- অগ্রণী, জনতা, রূপালী, সোনালী, বেসিক এবং বিডিবিএল- বাংলাদেশী প্রবাসীদের কাছ থেকে $ ১৪৩.২১ মিলিয়ন ডলার নিয়ে আসেন, তবে দুই রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন বিশেষ ব্যাংককে ৫.৩৯ মিলিয়ন ডলার প্রদান করা হয়।
বেসরকারি বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলির মধ্যে, ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশ লিমিটেড (আইবিবিএল) এর মাধ্যমে দেশের সর্বোচ্চ $ ১১৭.৩৪ মিলিয়ন মার্কিন ডলারে ঢুকেছে এবং তার পরে ডাচ-বাংলা ব্যাংকের $ ৩২.৫১ মিলিয়ন
রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন ব্যাংকগুলোর মধ্যে অগ্রণী ব্যাংকের ৫৭.৮৬ মিলিয়ন ডলার এবং সোনালী ব্যাংকের ৪৫.৫৮ মিলিয়ন ডলার, জনতা ব্যাংককে $ ৩১.৯৪ মিলিয়ন, রূপালী ব্যাংকের ৭.৭৪ মিলিয়ন এবং বেসিক ব্যাংকের $ ০.০৯ মিলিয়ন মার্কিন ডলার। তবে, বিডিবিএল কোন রেমিটেন্স পায়নি।
অন্যান্য প্রাইভেট ব্যাংকগুলির মধ্যে রেমিটেন্স অর্জনে অগ্রণী পদে রয়েছে ব্যাংক এশিয়া (২৪.৮১  মিলিয়ন ডলার), পূবালী ব্যাংক (২১.৮৬ মিলিয়ন মার্কিন ডলার), মিউচুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংক (২১.৪৪ মিলিয়ন মার্কিন ডলার), সাউথইস্ট ব্যাংক (১৭.৩৫ মিলিয়ন ডলার), ব্র্যাক ব্যাংক (১৬.৯২ মিলিয়ন ডলার), ন্যাশনাল ব্যাংক লিমিটেড (১৬.৫৯ মিলিয়ন ডলার), উত্তরা (১৩.৩০ মিলিয়ন ডলার), ম্যাকেন্টাইল ব্যাংক (১০.০৭  মিলিয়ন ডলার), এনসিসি ব্যাংক (১০.৩৩ মিলিয়ন ডলার), প্রাইম ব্যাংক (৯.১৫ মিলিয়ন ডলার) এবং ট্রাস্ট ব্যাংক (১০.০৮ মিলিয়ন ডলার)।
এদিকে, এনআরবি ব্যাংক রেমিটেন্স পাওয়ার ক্ষেত্রে একটি অপ্রতুল পারফরম্যান্স দেখিয়েছে, যদিও সরকারের উচ্চ আয়ের সাথে তাদের প্রতিষ্ঠানকে অনুমতি দেওয়া হয়েছিল।
এনআরবি ব্যাংকের তিনটি এনআরবি ব্যাংকের মধ্যে মাত্র ০.১৭ মিলিয়ন মার্কিন ডলার এবং এনআরবি বাণিজ্যিক ব্যাংকের ০.১৯ মিলিয়ন এবং এনআরবি গ্লোবাল ব্যাংকের ০.১৬ মিলিয়ন মার্কিন ডলার।
কিছু অন্যান্য বেসরকারী ব্যাংক রয়েছে, যেগুলি এই সময়ে রেমিটেন্স উপার্জনে দুর্বল কর্মক্ষমতা দেখিয়েছে, যেহেতু তারা ২০ মিলিয়নের নীচে পেয়েছে। এই ব্যাংকগুলি হল কৃষক ব্যাংক (০.১৩ মিলিয়ন ডলার), এসবিএসি ব্যাংক (০.৭৮ মিলিয়ন ডলার), এক ব্যাংক (০.৩২ মিলিয়ন ডলার), মধুমতি ব্যাংক (০.০৭ মিলিয়ন ডলার), মিডল্যান্ড ব্যাংক (০.০৭ মিলিয়ন ডলার), মেঘনা ব্যাংক (০.২০মিলিয়ন ডলার), এক্সাইম ব্যাংক (১.৫৯ মিলিয়ন ডলার) ), আইএফআইসি ব্যাংক ($ ১.০০এমএন) এবং শাহজালাল ইসলামী ব্যাংক (১.২৩মিলিয়ন ডলার), আইসিবি ইসলামিক ব্যাংক রেমিটেন্স পায়নি।